স্ত্রী-শ্যালিকাকে হত্যায় রিকশাচালকের স্বীকারোক্তি
স্ত্রী-শ্যালিকাকে হত্যায় রিকশাচালকের স্বীকারোক্তি

স্ত্রী-শ্যালিকাকে হত্যায় রিকশাচালকের স্বীকারোক্তি

স্ত্রী-শ্যালিকাকে হত্যায় রিকশাচালকের স্বীকারোক্তি ঢাকা: রাজধানীর তেজগাঁও এলাকার পূর্ব নাখালপাড়ায় সাবেক স্ত্রী ও শ্যালিকাকে কুপিয়ে এবং শ্বাসরোধ করে হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন রিকশাচালক রনি মিয়া।

রোববার (১০ জানুয়ারি) বিকেলে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরী ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

এদিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার পরিদর্শক শের আলম আসামি রনিকে আদালতে হাজির করে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ডের আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

জানা যায়, আসামি রনি মাদকাসক্ত। তিনি প্রায় চার মাস আগে স্ত্রী ইয়াসমিন আক্তারকে (৩০) তালাক দেন। পারিবারিক কলহের জের ধরেই রনি রোববার দুপুরে স্ত্রী ইয়াসমিনকে কুপিয়ে ও তার ছোট বোন শিমু আক্তারকে (১৬) শ্বাসরোধে হত্যা করেন। পরে এলাকাবাসী বিষয়টি টের পেয়ে রনিকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। ইয়াসমিনে গ্রামের বাড়ি নরসিংদী জেলার রায়পুরা গ্রামে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here