করোনা পজিটিভ ৩ যাত্রী, কোয়ারেন্টিনে ৪৭ খেলোয়াড়
করোনা পজিটিভ ৩ যাত্রী, কোয়ারেন্টিনে ৪৭ খেলোয়াড়

করোনা পজিটিভ ৩ যাত্রী, কোয়ারেন্টিনে ৪৭ খেলোয়াড়

করোনা পজিটিভ ৩ যাত্রী, কোয়ারেন্টিনে ৪৭ খেলোয়াড় অস্ট্রেলিয়ান ওপেন শুরুর আগেই বড় ধাক্কা। মেলবোর্নে আগত দু’টি প্লেনের তিন যাত্রীর করোনা টেস্টের রিপোর্ট পজিটিভ আসার পর প্লেনের সকল যাত্রী এবং ক্রু-মেম্বারদের ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে।
ওই প্লেনের যাত্রীদের মধ্যে রয়েছেন কেই নিশিকোরি, নারীদের সাবেক এক নম্বর টেনিস তারকা ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কা, কুজনেৎসোভাসহ মোট ৪৭ জন খেলোয়াড়। ফলে নিয়মমাফিক পাঁচ ঘণ্টা অনুশীলনও করতে পারবেন না তারা।
আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে এবারের অস্ট্রেলিয়ান ওপেন। রাফায়েল নাদাল, জকোভিচের মতো কয়েকজন তারকা আগেই অ্যাডিলেডে পৌঁছে গেলেও অধিকাংশ খেলোয়াড়েরই মেলবোর্নে আসার কথা। সেই মতো ১৫টি বিশেষ ফ্লাইটেরও ব্যবস্থা করা হয়েছে। এসব প্লেনে ২৫ শতাংশের বেশি যাত্রী উঠতে দেওয়া হয়নি। তা সত্ত্বেও শেষরক্ষা হয়নি।
আয়োজকদের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, লস অ্যাঞ্জেলস থেকে আসা বিশেষ প্লেনে ২ জনের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। প্লেনে ১২ জন ক্রু-মেম্বার ও ৬৭ জন যাত্রী ছিলেন। এর মধ্যে ২৪ জন খেলোয়াড় ছিলেন। তাদের প্রত্যেককে বর্তমানে হোটেলে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। আপাতত পরবর্তী মেডিক্যাল রিপোর্ট আসা পর্যন্ত কেউই হোটেল রুম থেকে বেরোতে পারবেন না।
এরপর আবুধাবি থেকে মেলবোর্নে আসা আরেকটি প্লেনেও একজন যাত্রীর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। ওই প্লেনে মোট ৬৪ জন যাত্রী ছিলেন। তাদের মধ্যে ২৩ জন খেলোয়াড়। এই খেলোয়াড়দেরও ওই একই নিয়ম মেনে চলতে হবে। এর ফলে মূলত সমস্যায় পড়বেন ওই টেনিস খেলোয়াড়রাই। কারণ কোভিড-১৯ বিধি মেনে আগামী ১৪ দিন তাদের অনুশীলনে নামাই অনিশ্চিত হয়ে পড়ল।
করোনা আবহে গত ১০০ বছরে প্রথমবার পিছিয়ে গেছে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন। চোট পুরোপুরি না সারায় নিজের ক্যারিয়ারে প্রথমবার অস্ট্রেলিয়ান ওপেন থেকে নাম তুলে নিয়েছেন রজার ফেদেরার। করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় অনিশ্চিত অ্যান্ডি মারেও। এই পরিস্থিতিতে শুরু হওয়ার কয়েকদিন আগে টুর্নামেন্ট আয়োজন নিয়ে আরও বিপাকে পড়লেন আয়োজকরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here